রাজধানীর ৪৮ থানায় ছড়িয়েছে করোনাঃ ১২ শতাধিক বাড়ী লকডাউন

0
108

বিএনএন টিভি, ন্যাশনাল ডেস্কঃ

গত ২রা মের পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশে করোনা রোগীর সংখ্যা ৮ হাজার ৭৯০ জন। এরমধ্যে বেশিরভাগ ঢাকা শহরের অধিবাসী। এদিকে করোনা সংক্রমণের কারণে এখন পর্যন্ত রাজধানীর ১ হাজার ২২৩টি বাড়ি লকডাউন। এই তালিকায় রয়েছে সরকারি স্টাফ কোয়ার্টার, বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীদের আবাসস্থল, হাসপাতাল, মন্দির এবং বিভিন্ন অলিগলি।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তথ্য অনুযায়ী, গত শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীর ৪১৩টি এলাকার ১ হাজার ২২৩টি বাড়ি লকডাউন ছিল। আর রাজধানীর ৫০টি থানা এলাকার মধ্যে ৪৮টিতেই সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

লকডাউন হওয়া বাড়িগুলোর মধ্যে ৮৫১টির অবস্থান পুরান ঢাকায়। ওয়ারী থানা এলাকায়ই লকডাউন হওয়া বাড়ির সংখ্যা ৪৫৪।

এদিকে ১ মে পর্যন্ত হিসাব অনুযায়ী ঢাকা বিভাগে রোগী মোট ৮৩ দশমিক ০৭ শতাংশ। এর মধ্যে ঢাকা শহরেই ৫৪ দশমিক ৭২ শতাংশ। ঢাকা বিভাগের ১৩ জেলার মধ্যে এখন পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জে ৯৬৬ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এরপর সবচেয়ে বেশি রোগী গাজীপুরে ৩২২ জন। ঢাকা জেলায় ১০৯, নরসিংদীতে ১৫১, কিশোরগঞ্জে ২০১ আর মুন্সীগঞ্জে ১১২ জন রোগী। ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে কম রোগী ফরিদপুরে ১৩ জন।

এছাড়া পুলিশ জানায়, লকডাউন হওয়া বাড়ির সংখ্যা তুলনামূলক কম হাজারীবাগ, নিউমার্কেট, রমনা, কলাবাগান ও ধানমন্ডিতে। মতিঝিল, শাহজাহানপুর, পল্টন, মুগদা, সবুজবাগ ও খিলগাঁওয়ে লকডাউন করা হয়ছে ৮০টি বাড়ি। তেজগাঁও, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, শেরেবাংলা নগর, আদাবর ও মোহাম্মদপুরে লকডাউন করা হয় ৯১টি বাড়ি।

মিরপুর, রূপনগর, দারুস সালাম, কাফরুল ও পল্লবীতে ৬৪ বাড়ি লকডাউন। গুলশান, ভাটারা, বাড্ডা ও খিলক্ষেতে ২২টি এবং উত্তরায় ৮৭টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।