“মা”,মানবতার সেবায় নিয়োজিত তোমার সন্তান,বেঁচে থাকলে দেখা হবে

0
123

এ এইচ মিলন শিকারীঃ

তুমি কি জানো মা,,মানবতার সেবায় নিজেকে সংযুক্ত করেছি আমি। অনির্দিষ্ট কালের জন্য তোমার ছেলের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এবার আর বাড়ীতে আসবো না মা। পরের বার এসে তোমার হাতের কুলি পিঠা খাবো কিন্তু।

রাগ করেছো মা!
মা, ও মা, মাগো….. আমি যে তোমার গর্বের মাস্তুল। আজ আমার সৌভাগ্য হয়েছে দেশ মাতৃকার জন্য কিছু করার। মা এই দেশও তো তোমার মতো আমারই মা। আমার মা এর জন্য আমি তো অকাতরে জিবনও বিলিয়ে দিতে পারি মা। আজ কি তোমার গর্বে বুকটা চওড়া হয়ে যাচ্ছে মা! আমি একজন সৈনিক। এমন সুযোগই তো আমি সারা জিবন ধরে খুজেছি। আজ আমার দেশ মাতা সেই সুযোগ দিয়েছেন।

এই দেশমাতার কোটি কোটি সন্তানকে নিরাপদে রাখতেই আজ আমরা রাস্তায়।

মা একটা বিষয় তুমি জানো কি! আমার দেশ মাতার অনেক সন্তান বড় বেশি নির্বোধ ও বোকা! ওরা নিজেকে এবং দেশকে একদম ভালোবাসে না। আমি সারাক্ষন মাইকে বলি সবাইকে ঘরে থাকতে, কিন্তু ওরা কথা শোনে না মা। তুমি কি ওদের একটু বকে দেবে? থাক বকতে হবে না, তাহলে ওরা কষ্ট পাবে। কিন্তু মা যদি ওদের না বকো, তাহলে তো ওরা মরেও যেতে পারে!

মা, মাগো আমি প্রতিদিন রোদে পুড়ে ওদের সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে বলি। মা ওরা শোনে না, ওরা বুঝতে পারছে না যে ওদের জন্য ঘরে থাকাটা কতোটা জরুরী। মা তুমি একটু বলে দেবে? মা এর কথা তো কেউ ফেলতে পারেনা।

তুমি কি জানো মা! যাদের দেখে ডাক্তাররা পর্যন্ত ভয়ে দূর থেকে কথা বলে! আজ তোমার সেই ছেলেটি তাদের বাসায় গিয়ে খাবার পৌছে দেয়, তাদের প্রয়োজনীয় সেবা করে দেয়।

তুমি কি শুনেছো মা?
তোমার ছেলেটি নিজেকে দেশ ও দেশের মানুষের জন্য বিলিয়ে দেয়ার জন্যই আজ রাস্তায়। নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা এবং তোমার নিরাপত্তার কথা না ভেবেই শুধুমাত্র দেশের প্রয়োজনে আজ আমিসহ আমার সকল বন্ধু ও সহকর্মীরা জিবনের কথা না ভেবে কাজ করে চলেছি।

মা জানো!
তারপরও মানুষ গুলো কথা শোনেনা মা। এবার যদি ওদের জোর না করি, তাহলে তোমার এই বোকা সন্তানরা দেশকেও মেরে ফেলতে পারে! কি করবো? তুমি বলে দেও মা।

তুমি কি দেখেছো মা?
এই করোনাভাইরাস মহামারী রোগে আক্রান্ত ব্যাক্তির মৃত্যুর পর তার নিজের প্রিয় পরিবারের কেউ শেষ দেখা দেখতেও যায়না! এমনকি দাফন দিতেও না! নিজের কথা চিন্তা না করে চলে এসেছে তোমার ছেলে!

তুমি কি রাগ করেছো মা?
আমি জানি তুমি আমার উপর রাগ করতেই পারোনা। কারন আমিতো আর এক মায়ের সেবায় নিয়োজিত।

মা খুব ইচ্ছে করে! একটিবার তোমার চরণতলের সেই জান্নাতটি স্পর্শ করতে। জানি না আর স্পর্শ করা হবে কি না!

প্রানখুলে দোয়া করো মা, আমার জন্য নয়! এই দেশ ও দেশের মানুষের জন্য। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলআমীন যেন আমাদের সকলকে হেফাজত করেন। শুনেছি আল্লাহর দরবারে মায়ের দোয়া নাকি সরাসরি কবুল হয়। মা তুমি প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পর দোয়া করবে কিন্তু।

মা আজ তোমার সেই ছেলেটি দেশের জন্য এবং দেশের মানুষের জন্য এক অদৃশ্য মহামারীর বিরুদ্ধ মরন যুদ্ধে নেমেছে। এ যুদ্ধ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমি ময়দানে আছি মা।

মাগো তুমি ডায়বেটিসের ঔষধ খেতে যেনো ভুলোনা। তোমার জন্য খুব চিন্তা হয়, যদি সুগারটা বেড়ে যায়!

ও মা, মা, তুমি কি ভয় পাচ্ছো! একদম ভয় পাবেনা, কারন তুমি একজন সৈনিক যোদ্ধার মা।

আমার মা, আমার প্রিয় মা,
যদি আল্লাহ রাব্বুল আলআমীন এর দয়ায় বেঁচে থাকি, তাহলে আবার তোমার কোলে মাথা রেখ কুলি পিঠা খাবো, আর তুমি আমার মাথায় হাত বুলিয়ে দেবে।

এবার রাখছি মা। ভালো থেকো অবিরত আমার মা।

ইতি,
তোমার কলিজার টুকরা।

দযাকরে আপনি… আপনার পরিবার এবং দেশের জন্য ঘরে থাকুন। আমরা আপনার জন্য রাস্তায় আছি।
ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন, সুস্থ থাকুন এবং সর্বদা সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখুন।

বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী,নৌ-বাহিনী, বিমান বাহিনী, Rab, পুলিশ বাহিনীসহ সকল আইনশৃংক্ষলা রক্ষাকারী সংস্হা।