মংলা বন্দরে ৬ চীনা নাবিক সুস্থ্য আছেন, জাহাজে কাজ শুরু

0
117

মনিরুল ইসলাম দুলু,,মংলা॥

মংলা বন্দরে আইসোলেশনে থাকা বিদেশী জাহাজের ক্যাপ্টেনসহ ৬ চীনা নাবিকের শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক হয়েছে। চব্বিশ ঘন্টা পর মঙ্গলবার সকালে চিকিৎসকরা ওই জাহাজের নাবিকদের পর্যবেক্ষন করতে গিয়ে তাদের শারীরিক অবস্থা সুস্থ্য ও স্বাভাবিক হয়েছে এবং নাবিকদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নেই বলেও দাবি করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চিকিৎসকরা। জাহাজটিতে মোট ২০ জন নাবিক রয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মংলা পোর্ট হেলথ অফিসার ডাঃ সুফিয়া খাতুন বলেন, নাবিক ও দেশীয় শ্রমিকরা ঝুকিমুক্ত হওয়ায় জাহাজের পণ্য খালাসের অনুমতি দেয়া হয়েছে।তবে তাদের সতর্কতার সাথে চলতে বলা হয়েছে ।

জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট মেসার্স সুলতান শিপিং-এর ব্যবস্থাপক মাহমুদুল হক রাজু জানান,৪টি গ্যাং বুকিং করা হযেছে এবং ওই জাহাজের ৪টি হুকেই শ্রমিকরা কাজ করছেন।

শ্রমিক নিয়োগকারী স্টিভিডরর্স প্রতিষ্ঠান মেসার্স গ্রীন এন্টারপ্রাইজ ম্যানেজার আব্দুল আজিজ জানান,টানা ২৪ ঘন্টার পর মঙ্গলবার বি-সিফট থেকে ওই জাহাজের পণ্য খাালাস কাজ শুরু হয়েছে। ২১জন লোক পণ্য খালাসে অংশ গ্রহণ করেছে।

আমদানীকারক মেসার্স শাহারা এন্টাপ্রাইজের ২৪ হাজার মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে ইন্দোনেশিয়া থেকে ‘এমভি চ্যাং হ্যাং জিং হাই’ জাহাজটি সোমবার দুপুর সোয়া ৩ টায় মংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ায় আসে। এ দিন বন্দরের চিকিৎসকরা জাহাজে থাকা ২০ নাবিকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে গেলে ৬ নাবিকের শরীরে উচ্চ তাপমাত্রা দেখতে পায়।

পরে বন্দরের হাড়বাড়িয়ার ৭ নম্বর মুরিং বয়ায় অবস্থান নেয়া জাহাজটির ওই ৬ নাবিককে আইসোলেশনে রাখা হয়।

শ্রমিক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স গ্রীন এন্টারপ্রাইজ পন্য খালাসের জন্য জাহাজে শ্রমিক পাঠায়, কিন্তু তাদের কাজ করতে না দিয়ে ফেরত পাঠায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চিকিৎসকরা।