বাইরের দেশগুলোতেও করোনার ভ্যাকসিন পরীক্ষা করতে চান চীনা বিজ্ঞানীরা

0
145

বাইরের দেশগুলোতেও করোনাভাইরানের ভ্যাকসিন পরীক্ষা করাতে চান চীনা বিজ্ঞানীরা। দেশটির সামরিক বিজ্ঞানীদের তৈরি এ ভ্যাকসিন পরীক্ষা করলে দ্রুত ভালো ফল পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন তারা।

ভ্যাকসিনগুলোর প্রথম পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের ফলাফল এ মাসের শেষে ঘোষণা করা হবে বলে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট জানিয়েছে।

চীনের একাডেমি অফ মিলিটারি মেডিকেল সায়েন্সের শীর্ষস্থানীয় এপিডেমিওলজিস্ট এবং ভাইরোলজিস্ট চেন ওয়ে বলেছেন, প্রাথমিক ফলাফলে যদি ভ্যাকসিনটি নিরাপদ প্রমাণিত হয় তবে চীন বিদেশে এর কার্যকারিতার পরীক্ষা করবে।

চীনের শ্বাসযন্ত্রের রোগের স্টেট কি ল্যাবরেটরির ভাইরোলজিস্ট চেন লিং বলেন, সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোতে এ পরীক্ষা চালালে দ্রুত এবং সঠিক ফলাফল তৈরি করতে সহায়তা করবে।

করোনাভাইরাসে প্রথম আক্রমণের শিকার হয় চীন। প্রায় আড়াই মাসের লড়াই শেষে ভাইরাসটিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে দেশটি। চীন এখন বিশ্বের কাছে ‘করোনা মোকাবেলায় মডেল’। করোনার উৎসস্থল চীনের হুবেই প্রদেশে গত তিন দিনে নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি।

পর্যাপ্ত ভাইরাস শনাক্তকরণ কিট, মাস্ক, ভেন্টিলেটর, সুরক্ষামূলক পোশাক এবং চিকিৎসকদের একাগ্র প্রচেষ্টায় পুরোপুরি সফল তারা।

চীনই এখন বিশ্বের অন্যান্য দেশের আদর্শ ও একমাত্র ভরসার পাত্রে পরিণত হয়েছে। বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম চেয়ে চীনের দ্বারস্থ হচ্ছে করোনা আক্রান্ত দেশগুলো। তাদের আবেদনে সাড়াও দিচ্ছে চীন।

মেডিকেল সরঞ্জামের পাশাপাশি করোনা বিশেষজ্ঞদের পাঠিয়েও সহায়তার হাত প্রশস্ত করছে বেইজিং।