বঙ্গোপসাগরে ডুবন্ত জাহাজ থেকে ১১ নাবিক জীবিত উদ্ধার

0
337

মোঃ সিরাজুল ইসলাম, ন্যাশনাল ডেস্কঃ

জাহাজটি থেকে একজন নাবিক ফোন করে জানান, জাহাজটির তলা ছিদ্র হয়ে পানি ঢুকে পড়ছে এবং সেটি ডুবে যাচ্ছে

বাংলাদেশ পুলিশ পরিচালিত “জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯” নম্বরে ফোনকল পেয়ে বঙ্গোপসাগর ও মেঘনা নদীর মোহনা থেকে একটি ডুবন্ত জাহাজ থেকে ১১ জন নাবিককে জীবিত উদ্ধার করেছে কোষ্টগার্ড।

বুধবার (০৬ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় একজন নাবিক ৯৯৯ ফোন করে জানান, নোয়াখালীর হাতিয়া উপকূল থেকে ৭ নটিক্যাল মাইল দূরে ভাসান চরের নিকটবর্তী বঙ্গোপসাগর ও মেঘনা নদীর মোহনা স্থলে তাদের “আল নুর-২” নামের জাহাজটির তলা ছিদ্র হয়ে পানি ঢুকে পড়ছে এবং জাহাজটি ডুবে যেতে শুরু করেছে। জাহাজে তারা ১১ জন নাবিক আছেন বলেও জানানো হয়।

তিনি আরও জানান, তারা জাহাজটি নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে রওনা দিয়েছিলেন যশোরের উদ্দেশ্যে। পথিমধ্যে জাহাজটি ডুবতে বসেছে। এ সময় তাদের জীবন বাঁচানোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান ওই নাবিক।

৯৯৯ থেকে তাৎক্ষনিক ভাবে বিষয়টি ভাসান চর পুলিশ ফাঁড়ি, চট্টগ্রাম নৌ পুলিশ এবং কোষ্টগার্ডের হাতিয়া অঞ্চলকে জানায় এবং উদ্ধার তৎপরতার জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

কিন্তু সাগরে উদ্ধার তৎপরতা চালানোর মতো নৌযান নৌপুলিশের না থাকায় সংবাদ পেয়ে হাতিয়া কোষ্টগার্ডের একটি দল দুর্ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

হাতিয়া কোষ্টগার্ডের লে. কমান্ডার আতিক জানান, সাগর এবং নদী উত্তাল থাকায় তাদের দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। কিন্তু তারা শেষ পর্যন্ত দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে ১১ জন নাবিককে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন। কিন্তু জাহাজটি নিমজ্জিত হয়ে গেছে।