পুলিশ বাহিনীতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে

0
127

পুলিশ বাহিনীতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। সর্বশেষ শনিবারের তথ্য অনুযায়ী পুলিশ বাহিনীর ৬৭৭ সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানীতে সর্বাধিক ৩২৮ পুলিশ সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। আর গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮ জন। আক্রান্তদের মধ্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার কর্মকর্তাসহ কনস্টেবল রয়েছেন।

অন্যদিকে আক্রান্ত সন্দেহে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন আরো সহস্রাধিক সদস্য। এসব পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার পাশাপাশি মনোবল অটুট রাখতে নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। মাঠপর্যায়ে কর্মরত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে পর্যাপ্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ড গ্লাভস এবং পার্সোনাল প্রটেকশন ইক্যুইপমেন্ট (পিপিই) সরবরাহ করা হচ্ছে।

জানা যায়, করোনা সংক্রমণ রোধে পুলিশ সদস্যরা দলবেঁধে পাড়া-মহল্লায় করোনার ভয়াবহতা এবং এ থেকে রক্ষায় করণীয় বিষয়ে নিজেদের লেখা গান গেয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করছেন। পোশাকধারী পুলিশের নতুন এ রূপ দেখে অনেকেই অবাক। নগরবাসীরা বাসা-বাড়ির ছাদ এবং বেলকনি থেকে তালি দিয়ে পুলিশের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছেন।

পুলিশ সদর দফতরের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত পাঁচ পুলিশ সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। সর্বশেষ শনিবার ভোরে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে মারা যান এসআই সুলতানুল আরেফিন (৪৪)। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট (পিওএম) পশ্চিম বিভাগে কর্মরত ছিলেন। এর আগে শুক্রবার রাতে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে মারা যান পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) এসআই নাজিম উদ্দিন।

২৮ এপ্রিল প্রথম করোনা আক্রান্ত হয়ে জসিম উদ্দিন নামে পুলিশ সদস্য মারা যান। কনস্টেবল জসিম উদ্দিন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ওয়ারী থানায় কর্মরত ছিলেন। বৃহস্পতিবার মারা যান ঢাকা মহানগর পুলিশের পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট (পিওএম) দক্ষিণ বিভাগে কর্মরত এএসআই আবদুল খালেক (৩৬) এবং ডিএমপির ট্রাফিক উত্তর বিভাগের এয়ারপোর্ট জোনে কর্মরত কনস্টেবল আশেক মাহমুদ (৪২)।

তথ্য হচ্ছে, মৃত্যুবরণকারী ও আক্রান্ত বেশিরভাগ পুলিশ সদস্যদের মধ্যে প্রথম দিকে করোনার সাধারণ উপসর্গ দেখা যায়নি।

পুলিশ সদর দফতরের একাধিক সূত্রে জানা যায়, পুলিশ সদর দফতরের দু’জন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সর্বাধিক ৩২৮ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন রাজধানীতে। ঢাকার বাইরে নারায়ণগঞ্জে ১১, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে ৮, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশে ২৭, ঢাকা জেলা পুলিশে ৪, মুন্সীগঞ্জে ১, কিশোরগঞ্জে ১০, গোপালগঞ্জে ১৮, গাজীপুরে মেট্রোপলিটন এলাকার বাইরে ১৬, নরসিংদীতে ৬, ময়মনসিংহে ১, শেরপুরে ৩, জামালপুরে ৫, ঝালকাঠিতে ১, গাইবান্ধায় ১, মৌলভীবাজারে ৩, নেত্রকোনায় ৫, টিঅ্যান্ডআইএমের ৩ জন, অ্যান্টি-টেরোরিজমের ৩, এসবির ৩৯, এপিবিএন-২-এর ১, এপিবিএন-১২-এর ২৯, পিবিআইর ১, সিআইডির ৩ এবং পুলিশের স্টাফ কলেজে ১ জন আক্রান্ত হয়েছেন।