নির্বাচনের দাবিতে যশোরে ১৮টি রুটে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা

0
38

জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনের দাবিতে ২৮ ডিসেম্বর (সোমবার) যশোরের ১৮টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। শ্রমিকরা স্বেচ্ছায় কর্মবিরতির ঘোষণা দেওয়ায় ওইদিন ভোর ৬টা থেকে পরদিন ভোর ৬টা পর্যন্ত বাস চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

যশোর জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে মঙ্গলবার (২২ ডিসম্বের) অনুষ্ঠিত সমাবেশে নেতারা এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

সভায় শ্রমিকনেতারা বলেন, সংগঠনটিতে দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচন বন্ধ আছে। তিন বছর পর পর নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন কমিটি দায়িত্ব পালন করে আসছে। সেই ধারাবাহিকতায় গত ২০ মার্চ নির্বাচনের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে জেলা প্রশাসক ১৮ মার্চ ওই নির্বাচন স্থগিত করে দেন। এরপর করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই স্থানীয় সরকারের একাধিক নির্বাচনসহ বিভিন্ন সংগঠনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেবল দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বৃহত্তর এ শ্রমিক সংগঠনের নির্বাচন করোনার দেহাই দিয়ে বন্ধ রাখা হচ্ছে। এতে করে সংগঠনের কার্যক্রম গতিহীন হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় নির্বাচন অনুষ্ঠান জরুরি হয়ে পড়েছে।

নেতারা আরো বলেন, বারবার নির্বাচনের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে নির্বাচন দেওয়ার অনুরোধ করা হলেও প্রশাসন তাতে কর্ণপাত করছে না। এজন্য দাবি আদায়ে আগামী ২৮ ডিসেম্বর ভোর ৬টা থেকে পরদিন ভোর ৬টা পর্যন্ত স্বেচ্ছায় কর্মবিরতি পালন করবেন শ্রমিকরা।

এক প্রশ্নের জবাবে ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক সেলিম রেজা মিঠু বলেন, শ্রমিকরা যেহেতু স্বেচ্ছায় কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন ফলে যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। দাবি আদায় না হলে আগামীতে লাগাতার আন্দোলনের কর্মসূচিও আসতে পারে।

যশোর শহরের মণিহার চত্বরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়নের সভাপতি মামুনুর রশিদ বাচ্চু।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোর্ত্তজা হোসেন, সাবেক সভাপতি আজিজুল আলম মিন্টু, মাগুরা জেলা মোটরশ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ইমদাদ হোসেন, যশোর জেলা ট্রাক ট্যাংকলরি শ্রমিক ইউনিয়নের আলম সিদ্দিকী আলম, যশোর জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন বিশ্বনাথ বিষু, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, যশোর জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি শাহেদ হোসেন জনি, রবিউল ইসলাম, আবু হাসান, যুগ্ম সম্পাদক সেলিম রেজা মিঠু প্রমুখ।