দেশে মাথা ন্যাড়া করার হিড়িক

0
182

দেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে বন্ধ রয়েছে দেশের স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। আর এই সুযোগে ঘরে বসেই অনেকে মাথা ন্যাড়া করে ফেলছেন।

প্রসঙ্গত, চীনের উহান প্রদেশে করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে দেশটির বেইজিংসহ সব প্রদেশ থেকে চিকিৎসক এবং নার্স সেখানে পাঠানোর আগে তাদের মাথা ন্যাড়া করে পাঠানোর হিড়িক পড়ে গিয়েছিল। এমন পরিস্থিতি নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেছিল বার্তা সংস্থা রয়টার্স। সেখানে বলা হয়, আক্রান্তদের চিকিৎসা দেওয়ার সময় যেন নিজেরা এ ভাইরাসে আক্রান্ত না হন; সে জন্য চিকিৎসক এবং নার্সরা চুল ছোট করে ফেলেছেন। এছাড়া অনেকে ন্যাড়াও হয়েছিলেন। আর এ সুবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ন্যাড়া হওয়ার বিষয়টি বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে, গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) অসংখ্য শিক্ষার্থী ও কয়েকজন শিক্ষকদের মাঝেও পড়ে গেছে মাথা ন্যাড়া করার হিড়িক।

মাথা ন্যাড়া করার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের শিক্ষক মো. রকিবুল ইসলাম বলেন, মাথার চুল বড় হয়ে গেছে। গরমের মধ্যে মাথার চুল বড় থাকলে অসহ্য লাগে। কিন্তু বাইরে বের হয়ে কাটানোর কোন ব্যবস্থা নেই। তাই ঘরে বসে মাথা ন্যাড়া করে ফেলেছি।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী মুহসিন আহমেদ বলেন, আমি ও আমার পরিবারের আরো চার সদস্য মাথা ন্যাড়া করেছি। এই মুহূর্তে সকলে ঘরেই আছি। এই সুযোগে মাথা ন্যাড়া করলাম। বাংলা বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী দিপ কুমার মণ্ডল বলেন, মাথার চুল পড়ে যাচ্ছিলো। তাই ঘরে বসে থাকার এই সময়ে মাথা ন্যাড়া করলাম। পূর্বে ন্যাড়া হলে বাইরের লোকজন হাসি-ঠাট্টা করতো। কিন্তু এখন সে সুযোগ নেই। ফলে বেশ সুবিধা হয়েছে।

এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে দেশের অধিকাংশ মানুষই মাথা ন্যাড়া করে সকলে ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শেয়ার করছেন।