করোনা রোগীদের জন্য ৪ মে খুলে দেয়া হচ্ছে বসুন্ধরা আইসোলেশন কেন্দ্র

0
114

প্রাণঘাতী নোভেল করোনা রোগীদের জন্য আগামী ৪ মে খুলে দেয়া হচ্ছে বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারের আইসোলেশন কেন্দ্র। এখানে দুই হাজারের বেশি বেড স্থাপন করা হয়েছে। হাসপাতাল নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান জানায়, রোগীর প্রয়োজন ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চাহিদা মোতাবেক গুরুতর রোগীর জন্য আইসিইউ স্থাপনের বিষয়টি বিবেচনাধীন রয়েছে।

বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে করোনা রোগীদের জন্য তৈরি বিশেষায়িত হাসপাতালটির কাজ শুরু হয় ১৩ এপ্রিল। এরইমধ্যে প্রায় ২০১৩টি বেড সেবার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে।

হাসপাতাল নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান অনিক ট্রেডিং করপোরেশন জানায়, তিনদিনের মধ্যে প্রাথমিকভাবে প্রস্তুত বেডগুলো স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অনিম ইসলাম বলেন, আমাদের ৯৮ শতাংশ কাজ শেষ। একই সঙ্গে সিটিংয়ের যে প্রোসেস সেটা এখনো চলমান রয়েছে। প্রতিটি ক্লাসটারে ২৪৮টা বেড রয়েছে। সেখানে আটজন করে ডাক্তার ও ৩২ জন নার্স থাকবে।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে হাসপাতালটির সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. জাহেদ মালিক। তিনি বলেন, মে মাসের ৪ তারিখের মধ্যে আমরা সেবায় দিয়ে দিতে পারবো। যারা আইসোলেশনে থাকবেন; তাদেরকে এখানে রাখবো।

দেশের মানুষের জীবন জীবিকার কথা বিবেচনায় নিয়ে ধীরে ধীরে সব কিছু খুলে দেয়ার কথাও জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, আমরা এখনো ভালো অবস্থানে আছি বলে সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পর্যায়ে গার্মেন্টও খোলে দেয়া হচ্ছে। সেই সঙ্গে অন্যান্য শিল্প-কারখানাও খুলে দেয়া হচ্ছে।

এরইমধ্যে দেশে ৭ হাজার ১০০ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে। করোনার ভয়াবহতা বিবেচনায় নিয়ে বিশেষায়িত হাসপাতাল করার উদ্যোগ নেয় সরকার।