করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রস্তুতির প্রশংসা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

0
111

মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রস্তুতির প্রশংসা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। একই সঙ্গে তিনি আমেরিকানদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের সহযোগিতারও প্রশংসা করেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সোমবার (২৭ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার সোমবার (২৭ এপ্রিল) পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন। সে সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর লেখা চিঠি ড. মোমেনকে হস্তান্তর করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও কভিড-১৯ মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করার ব্যাপারে আশ্বাস দিয়েছেন।

এদিকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সাক্ষাৎকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বাংলাদেশের জনগণের জীবন ও জীবিকার ওপর কভিড-১৯ এর বিরূপ প্রভাব, বিশেষ করে রপ্তানি আদেশ প্রত্যাহারের কারণে এ দেশের তৈরি পোশাক শিল্পের ওপর প্রভাব তুলে ধরেন। তিনি রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কাছে মার্কিন বাজারে বাংলাদেশি তৈরি পোশাক শিল্পের জন্য সুবিধা প্রত্যাশা করেন।

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত পাওয়াকে বাংলাদেশ সরকারের অগ্রাধিকার হিসেবে তুলে ধরেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। খুনি রাশেদ চৌধুরীকে বহিষ্কার করে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাতে তিনি যুক্তরাষ্ট্রকে অনুরোধ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত রোহিঙ্গা সংকট নিয়েও আলোচনা করেন। রাষ্ট্রদূত মিলার এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাস দেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা বাড়ানোর অনুরোধ জানান। মার্কিন রাষ্ট্রদূত এ ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কাজ করার আশ্বাস দেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী কভিড-১৯ মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের কৌশলগুলো তুলে ধরেন। এ সময় তিনি বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবিলায় আগামী দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।