করোনা টেস্টের সাহায্য চেয়ে ১২১টি দেশের অনুরোধ

0
72

সারা বিশ্বে যখন করোনাভাইরাস মহামারীর আকার ধারণ করেছে ঠিক সেই সময়ে ভাইরাসটির সংক্রমণ ঠেকাতে সফল হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। আর এ কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সাহায্য চাইছে দেশটির কাছে।

বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, করোনাভাইরাসের টেস্টের সাহায্য চেয়ে ১২১টি দেশের অনুরোধ তাদের কাছে এসেছে। এ প্রাণঘাতী ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকাতে বিভিন্ন দেশের সরকার তীব্র চাপের মুখে রয়েছে।

রয়টার্সের বরাত দিয়ে দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস জানিয়েছে, চীনের পরই করোনার প্রাদুর্ভাবে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। তবে করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে দেশটিতে ব্যাপক পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয় এবং ভাইরাসটির বিস্তার কমে আসায় কৃতিত্ব দেওয়া হয়েছে।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে দেশটির এক কর্মকর্তা বলছেন, দ্রুত করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কাটিয়ে ওঠার অভিজ্ঞতার বিষয়ে আমরা বিভিন্ন দেশ থেকে অনেক অনুরোধ পাচ্ছি। বর্তমানে এমন দেশের সংখ্যা ১২১টি; তবে এটি দিনের পর দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার মন্ত্রণালয় বলছে, বিভিন্ন দেশকে কিভাবে সাহায্য করা যায় এ জন্য একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে। কিট রফতানি অথবা মানবিক সহায়তার বিষয়টিও তারা ভাবছে।

কোনো দেশের নাম উল্লেখ না করে ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার টেস্ট কিট তৈরিকারকদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র ও ইতালি চুক্তি করেছে।

গত সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ করার অনুরোধ করেন। এ ক্ষেত্রে মার্কিন নিয়ন্ত্রকদের অনুমোদন দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।