আমিরগঞ্জে চেয়ারম্যান নিজ হাতে পিটিয়ে সাংবাদিককে রক্তাক্ত করলেন

0
173

নরসিংদীর রায়পুরার আমিরগঞ্জে এসএ টিভির জেলা প্রতিনিধি সজল ভূইয়াকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে আমিরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধা ৬টার দিকে আমিরগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতাবস্থায় সজল ভূইয়াকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত সজল ভূইয়া জনান, বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে আসা এশিয়ান টেলিভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার বাতেন বিপ্লব নরসিংদীতে আসেন চাল চুরি, ১০টাকার চাল বিক্রয় ও কার্ডধারী সুবিধাভূগীদের নিয়ে প্রতিবেদন করার জন্য। ঢাকা থেকে আসা রিপোর্টার তার পূর্ব পরিচিত হওয়ায় তাকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে সহযোগিতা করছিলেন। বাতেন সন্ধ্যা ৬টার দিকে আমিরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যানের সাক্ষাৎকার নিতে যান।

সজল জানান, সাক্ষাৎকার নিতে পৌছলে আমিরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খান, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি বাশার, সাধারণ সম্পাদক শরীফ ও রুবেল, নোয়াব, শহীদসহ প্রায় ২০জন সন্ত্রাসী তাকে ওই রিপোর্টারে গাড়ি থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকে। পিটিয়ে তাকে রক্তাক্ত জখম করে। পরে ওই রিপোর্টারের সাথে থাকা লোকজন তাকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।

উল্লেখ্য, সজল ভূইয়া আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের করিমগঞ্জে একটি এলপিজি ফিলিং স্টেশন নির্মান করছে। সেখান থেকে বিভিন্ন সময় চাঁদা দাবী করত চেয়ারম্যান। তাকে চাঁদা না দেয়ায় বিভিন্ন সময় ছাত্রলীগের নেতাসহ সন্ত্রাসী বাহিনী পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করে দিত।

এর আগে একবার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে নির্মানাধিন প্রতিষ্ঠানে হামলা চালানোর পর এসএ টিভির ক্যামেরাম্যান আহত হয়। এ ব্যাপারে রায়পুরা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। এর কিছুদিন পর এসএ টিভির জেলা প্রতিনিধি সজল ভূইয়াকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়। এর প্রেক্ষিতে নরসিংদী আদালতে আমিরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খানকে প্রধান আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এসব ঘটনার প্রেক্ষিতে তার ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে জানান তিনি।