Bangladesh News Network

আমরা মানুষের ভালোবাসার পাত্র হয়ে থাকতে চাই: জায়েদ খান

শিল্পীদের জীবন নিয়ন্ত্রিত হওয়া উচিত

0 54

এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলেন এ অভিনেতা। তিনি মনে করেন, শিল্পীরা ফুলের মতো, শিল্পীদের মানুষ ভালোবাসে।

‘শিল্পীরা হচ্ছে পাবলিক ফিগার। মানুষ তাদের দেখে শিখে। আমাদের জীবন যাত্রা খুব লিমিটেড হওয়া উচিত। শিল্পীদের এমন কোনো কাজ করা উচিত না যাতে কেউ আঙুল তুলতে পারে। একটা শিল্পী অঘটন ঘটালে সেটা সমস্ত শিল্পীদের ওপর যায়। সে জন্য বলেছি, শিল্পীদের জীবন নিয়ন্ত্রিত হওয়া উচিত।’

তানভীর তারেকের উপস্থাপনায় ‘রাতাড্ডা’য় এমনটাই বলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। সোমবার (২১ জুন) লাইভে অংশ নেন জায়েদ খান। কথা বলেন চলচ্চিত্র শিল্পীদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ইস্যুতেও নিজের অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।

কথা প্রসঙ্গে জায়েদ বলেন, ‘ক্লাবে যাওয়া আর ক্লাবে গিয়ে ঘটনা ঘটা অন্য জিনিস। আমি সে ঘটনার মধ্যে কেনো যাব, যেখানে দুঘর্টনা ঘটে। এতে শিল্পীদের প্রতি মানুষের আকর্ষণ কমে। এসব কারণেই শিল্পীদের মানুষ অন্য চোখে দেখে। আমরা তো মানুষের ভালোবাসার পাত্র হয়ে থাকতে চাই।’

‘অন্তর জ্বালা’খ্যাত এ অভিনেতা মনে করেন, সিনেমার আলোচনা রাত ১২টার পর ক্লাবে না হয়ে নিজের বাসায় হওয়া উচিত। অথবা দিনের বেলায় ভালো রেস্টুরেন্টেও হতে পারে। এসব ব্যাপারে শিল্পীদের আরও সংযত হওয়া দরকার।

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির এ সাধারণ সম্পাদক চান না শিল্পীদের দিকে কেউ আঙুল তুলে কথা বলুক। তার ভাষায়, ‘শিল্পীরা ফুলের মতো, শিল্পীদের মানুষ ভালোবাসে। তাদের দেখে মানুষ স্টাইল করে, অনুসরণ করে। এতে কন্ট্রোভার্সি আসলে আকর্ষণটা নষ্ট হয়ে যায়।’

Comments
Loading...
%d bloggers like this: