আইসিসির বার্ষিক র‌্যাংকিংয়ে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের অবস্হান ৮ম

0
130

করোনার চলমান স্থবিরতার মাঝে র‌্যাংকিং প্রকাশ করলো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল। টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আফগানিস্তানকে টপকে ৮ নম্বরে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টির সাথে টেস্টেও র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করেছে অস্ট্রেলিয়া। অজি কোচ জাস্টিন ল্যাংগারের প্রত্যাশা অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতবে অ্যারোন ফিঞ্চের নেতৃত্বে। তবে ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে দাপট ধরে রেখেছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড।

কোভিড-১৯ থামিয়ে দিয়েছে ক্রিকেটাঙ্গণ। তবে চলমান রয়েছে প্রশাসনিক কার্যক্রম। গেলো সপ্তাহেই বিভিন্ন বোর্ডের সিইওদের সাথে সভা করে ছিল আইসিসি। এবার ৩ ফরম্যাটে র‌্যাংকিং প্রকাশ করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা।

অবশ্য নতুন র‌্যাংকিংয়ে রদবদল হয়েছে বেশ। সাদা পোশাকের ক্রিকেটে মুকুট হারিয়েছে ভারতে। ২০১৬’র পর অস্ট্রেলিয়া উঠে এসছে শীর্ষে। যদিও দ্বিতীয় স্থানটা দখলে রেখেছে নিউজিল্যান্ড। আর এই ফরম্যাটে ভারতের অবস্থান হয়েছে ৩ নম্বরে।

প্রথমবারের মতো আইসিসি র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠে এসেছে অস্ট্রেলিয়া। দীর্ঘ ২৭ মাস পর পাকিস্তানকে হটিয়ে নম্বর ওয়ান স্মিথরা। তিন নম্বরে ভারত আর চারে পাকিস্তান। দ্বিতীয় স্থান অক্ষুন্ন রেখেছে ইংল্যান্ড। অ্যারণ ফিঞ্চের নেতৃত্বে গেলো ১০ টি-টোয়েন্টির ৯টিতেই জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। কোচ জাস্টিন ল্যাংগারও আশাবাদী সংক্ষিপ্ত এই ফরম্যাটে।

জাস্টিন ল্যাংগার বলেন, এখন সময় এসেছে কিছুটা স্বস্তি নেয়ার। তবে আমাদের একটা উদ্দেশ্য ছিল। আমরা এক নম্বরে উঠে আসতে চেয়েছি। তার জন্য মাঠ এবং মাঠের বাইরে পরিশ্রম করতে হয়েছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতা অনেক কঠিন। তবে আমি এটা দেখে খুবই খুশি হতাম অ্যারন ফিঞ্চ তার সতীর্থদের নিয়ে টি-টোয়েন্টি ট্রফি উদযাপন করছে।

টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে নিজেদের একধাপ এগিয়ে এনেছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতে মাহমুদউল্লার দলের সংগ্রহ ২২৯ পয়েন্ট। সমান পয়েন্ট আছে ক্যারিবিয়ানদেরও। তবে দু’দলের শেষ সিরিজে এগিয়ে থাকায় এক ধাপ এগিয়ে টাইগাররা।

ওয়ানডেতে দাপট ধরে রেখেছে ইংল্যান্ড। ১২৭ র‌্যাটিং পয়েন্ট নিয়ে মুকুট ধরে রেখেছে চ্যাম্পিয়নরা। ১১৯ র‌্যাটিং পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ভারত। নিউজিল্যান্ড রয়েছে ৩ নম্বরে। আর বাংলাদেশের অবস্থান ৭ নম্বরে।